কোরবানি দেওয়ার আগে চুল ও নখ কাটা যাবে কি?

0
61
কোরবানি দেওয়ার আগে চুল ও নখ

প্রশ্ন : আমাদের ইমাম সাহেব বলেন যে জিলহজ মাসের চাঁদ ওঠার পর থেকে যে কোরবানি দেবে তাঁর চুল, নখ এ জাতীয় কিছুই কাটা যাবে না। যদি চুল-নখ কাটি, তাহলে নাকি গুনাহ হবে। এটা কতটুকু সহিহ হাদিস সম্মত?

উত্তর : হ্যাঁ, আপনি ইমাম সাহেবের কাছ থেকে যে কথাটি শুনেছেন, সেটি শুদ্ধ। এই মর্মে রাসূল (সা.)-এর সহিহ হাদিস সাব্যস্ত হয়েছে। রাসূল (সা.) স্পষ্টভাবে নিষেধ করেছেন।

এটি শুধু ওই ব্যক্তির জন্য, যে কোরবানি করবে। পরিবারের সব সদস্য নয়। যাঁদের পক্ষ থেকে কোরবানি করা হচ্ছে তাঁরা নন, শুধু যে কোরবানি করবে, অর্থাৎ যে কর্তা তিনিই শুধু এই কাজটি করবেন। একেবারে কোরবানি করা পর্যন্ত তিনি চুল, নখ এগুলো কাটবেন না। যখন কোরবানি করা হবে তখন তিনি চুল, নখ কাটবেন। এটি রাসূল (সা.)-এর সুন্নাহ। এই মাস’আলার মধ্যে আলেমদের দ্বিমত আছে। একদল ওলামায়ে কেরাম এটাকে ওয়াজিবও বলেছেন। সুতরাং আমরা এটাকে সুন্নাহ হিসেবে আখ্যায়িত করলেও এর মধ্যে তাহকিক রয়েছে। ফলে আল্লাহর নবী (সা.) নিষেধ করেছেন। রাসূল (সা.) বলেছেন, ‘সে তাঁর নখগুলো কাটবে না এবং চুলগুলো সে ছোট করবে না।’ এখান থেকে যেটা বোঝা যায় সেটা হলো, রাসূল (সা.) এটা নিষেধ করেছেন। তাই গুনাহ হবে, এ কথাটাও সে সঠিক বলেছেন।

 ড. মুহাম্মদ সাইফুল্লাহ

আরও পড়ুন কোরবানি : ১৫টি অতি গুরুত্বপূর্ণ তাৎপর্য ও আহকাম

Comments

comments

আরও পড়ুনঃ   কি দরকার ছিল এতসব খারাপ ঘটনার?

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

2 × 1 =