পাকা চুল, আইব্রো তোলা, ও মহিলাদের কপালের সামনের চুল কাটা

0
46
পাকা চুল, আইব্রো তোলা, মহিলাদের কপালের সামনের চুল কাটা

পাকা চুল হল মানুষের জন্য সম্মানের লক্ষণ। ইবরাহীম (আঃ) এর চুল প্রথম পাকাতে তিনি ভিত হয়ে গিয়েছিলেন এবং প্রশ্ন মুখর হয়েছিলেন যে এই রকম হল কেন?  পরে ফেরেশতার মাধ্যমে জানতে পারেন যে, “এটা হল মহান আল্লহ রব্বুল আলামীন এর পক্ষ থেকে সম্মানের লক্ষ্মণ”। আর এখন সমাজে কিছু লোক নিজেকে যুবক হিসাবে মানুষের কাছে প্রকাশ করার জন্য প্রাথমিক ভাবে পাকা চুলগুলো তুলে ফেলে। অতঃপর বেশি পাকলে আর তোলা বাদ দিয়ে কাল কলপ করে, যা কিনা সম্পূর্ণরূপে নিষেধ। রসুল সল্লাল্ল-হু আলাইহি ওয়া সাল্লাম বলেছেন, “পাকা চুল হচ্ছে মুসলমানদের জ্যোতি; ইসলাম ধর্মে কোন লোকেরই চুল পাকে না, বরং প্রত্যেকটি পাকা চুলের বিনিময়ে সে একটি উত্তম প্রতিফল পেয়ে থাকবে এবং তার মর্যাদা এক ডিগ্রী উপরে উঠানো হবে”।

মানুষের লোক দেখানো সৌন্দর্য বৃদ্ধি করার জন্য তথা বিজাতিদের অনুকরণ করার জন্য কিছু মহিলা তাদের মাথার সামনের চুল কেটে সামনে দিয়ে ঝুলিয়ে রাখে। মহিলাদের জন্য এই রকম সামনের চুল কাটা সম্পূর্ণরূপে হারাম। সে সাথে কিছু কিছু মহিলা তাদের সৌন্দর্য বৃদ্ধির জন্য আই-ব্রো তুলে অথবা কেটে চিকন করে। এরূপ আই ব্রো তুলে মহান আল্লহ রব্বুল আলামীন এর দেয় প্রাকৃতিক আকৃতি পরিবর্তন করা হারাম। তাছাড়াও যারা সামনের চুল কেটে এবং আই ব্রো তুলে চেহারার বিকৃতি সাধন করে, রসুল সল্লাল্ল-হু আলাইহি ওয়া সাল্লাম তাদের প্রতি অভিশাপ করেছেন। হাদিসের দৃষ্টিতে শয়তান তাদেরকে নিয়ে খেলা করে। মোটকথা আই ব্রো তুলা এবং তার যায়গায় নকল আই ব্রো অঙ্কন করা হারাম। যদিও উত্তম বিষয়টি মহান আল্লহ রব্বুল আলামীনই ভাল জানেন, তারপরও এ বিষয়ে আরও অধিক জানার জন্য ইন্টারনেট মাধ্যমে নীচের ওয়েব সাইট ভিজিট করুন:

http://www.islamqa.com/en/ref/13744/hair

http://www.islamqa.com/en/ref/9037/hair

http://www.islamqa.com/en/ref/82378/hair 

জয়নুল আবেদীন

Comments

comments

আরও পড়ুনঃ   ইসলাম প্রচারের নিয়ম-নীতি

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

fifteen + eighteen =