মেহেদির রং গাঢ় করার কৌশল

0
32
মেহেদির রং গাঢ়

ঈদের আনন্দের একটি বড় অংশ জুড়েই থাকে মেহেদি। গাছ থেকে মেহেদি পাতা ছিঁড়ে সেগুলো পাটায় পিষে নেওয়া থেকে শুরু করে রাত জেগে হাতে মেহেদি লাগানো, সবকিছুতে থাকে আনন্দ আর উচ্ছ্বাস।  পাশাপাশি তরুণীদের মাঝে চলে কার মেহেদির রং কত বেশি গাঢ় তা নিয়ে প্রতিযোগীতা। বলাই বাহুল্য, এসব ঈদেরই অংশ।

তবে এখন আর মেহদি পাতা পাটায় পিষে বেটে নেওয়া খুব একটা দেখা যায় না। বাজারে কিনতে পাওয়া যায় নানা ব্র্যান্ডের মেহেদি টিউব। সেই সাথে পরিবর্তন এসেছে মেহেদি লাগানোর ধরণেও। তবে সব কিছুর পরও প্রশ্ন একটাই, মেহেদির রং গাঢ় করবো কিভাবে? আর এই সমস্যার কিছু সহজ সমাধান আছে। আসুন জেনে নেই, মেহেদির রং গাঢ় করার কিছু সহজ কৌশল।

১। অনেক্ষন হাতে মেহেদি রাখুন
মেহেদি লাগানোর পর এটি হাতে ৭ থেকে ৮ ঘন্টা রাখুন। সবচেয়ে ভালো হয় যদি এটি ১২ ঘন্টা রাখতে পারেন। শুকিয়ে গেলে পানি দিয়ে মেহেদি ধোবেন না। হাত দিয়ে ঘষে মেহেদি তুলে ফেলুন। কয়েক ঘন্টা পর দেখবেন মেহেদি অনেক লাল হয়ে গেছে।

২। মেহেদি পেঁচিয়ে রাখুন
অনেকে মনে করেন মেহেদি মাখানো হাত কিছু দিয়ে পেঁচিয়ে রাখলে তার রং গাঢ় হবে। তবে এতে আপনার মেহেদির ডিজাইন নষ্ট হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। আপনি যদি সাবধানতা অবলম্বন করেন তবে এই কাজটি করতে পারেন।

৩। লেবু চিনির মিশ্রণ
কিছু পরিমাণ চিনি পানিতে দিয়ে জ্বাল দিন। এটি ঠাণ্ডা হলে এতে কয়েক ফোটা লেবুর রস দিয়ে দিন। একটি তুলোর বলে এই মিশ্রণটি লাগিয়ে মেহেদি উপর লাগান। এটি বার বার করুন। চিনি ত্বকের সাথে মেহেদি ভালোভাবে লাগাতে সাহায্য করবে আর লেবুর রস মেহেদির রঙ গাঢ় করবে।

৪। লবঙ্গের ভাপ 
প্রথমে চিনি লেবুর পানি মেহেদির উপর ব্যবহার করুন। একটি তাওয়াতে কিছু পরিমাণ লবঙ্গ নিয়ে অল্প আঁচে জ্বাল দিন। এবার হাতটি সাবধানে তাওয়ার উপর রাখুন, যেনো লবঙ্গের ভাপ আপনার মেহেদি লাগে। তবে সাবধান থাকবেন হাত যেনো পুড়ে না যায়। এই ভাপ লেবু চিনির মিশ্রণ শুকিয়ে ফেলবে। এই কাজটি মেহেদি তুলে ফেলার পরও করতে পারেন।

আরও পড়ুনঃ   ফেরাউনের লাশ ৩১১৬ বছর পানির নীচে অথচ একটুও পচেনি, কেন? আসল রহস্যটি জানুন!

৫। বাম বা অলিভ অয়েল ব্যবহার
মেহেদি তুলে ফেলার পর যেকোনো বাম যেমন ভিক্স অথবা টাইগার বাম ব্যবহার করুন। বলা হয়, এই বাম মেহেদির রং ভিতর থেকে উন্নত করে। এক্ষেত্রে অলিভ অয়েলও মাখতে পারেন।

সূত্র: স্টাইল ক্রেইজ

ওয়াসিফ

Comments

comments

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

5 × 4 =